1. dailynarsingdi24@gmail.com : Daily Narsingdi 24 : Rabbi Sarker
  2. ojjalsarker@gmail.com : ডেইলি নরসিংদী ২৪ : ডেইলি নরসিংদী ২৪
     
শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন




প্রতিষ্ঠার ১৪ বছরেও নির্বাচন দেখেনি শিবপুর পৌরবাসী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৫২ বার পঠিত

ডেইলি নরসিংদী ২৪ : প্রতিষ্ঠার ১৪ বছর পরও নির্বাচন দেখেনি নরসিংদীর শিবপুর পৌরবাসী। সীমানা জটিলতা মামলার কারণে নির্বাচন না হওয়ায় জনগণের ভোটে নির্বাচন করা যাচ্ছে না পৌর মেয়র। এতে পৌর প্রশাসক দিয়ে কার্যক্রম চালানো ও পৌর এলাকার কাঙ্খিত উন্নয়ন না হওয়ায় পৌরবাসীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে, শিবপুর পৌরসভার মোট আয়তন ৯.৮ বর্গ কিঃ মিঃ। ২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এখানে মোট জনসংখ্যা ২০ হাজার ২৭২ জন। বিএনপি সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন ২০০৬ সালে পৌরসভাটি গঠিত হয়। গঠিত পৌরসভার প্রথম পৌর প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন বর্তমান নরসিংদী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার। মাস কয়েক পরেই তাকে এ পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে শিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে পৌর প্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়া হয়। সে থেকে এখনও পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাই পৌর প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করছেন।

পৌরসভার সীমানা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে ২০১৪ সালে মাছিমপুর ইউনিয়নের মহিলা সদস্য ফাতেমা আক্তার স্মৃতি ও চক্রধা ইউনিয়নের মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে পৃথকভাবে হাইকোর্টে দুটি মামলা দায়ের করেন। পৌরসভা থেকে মাছিমপুর ইউনিয়নের বাজনাব, বান্দারদিয়া এবং চক্রধা ইউনিয়নের আশ্রাফপুর গ্রামকে বাদ দেওয়ার জন্য ওই মামলায় দাবি করা হয়। সেই থেকে শিবপুর পৌরসভা ও পাশের ওই দুটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অদ্যাবধি পর্যন্ত স্থগিত রয়েছে।

পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন দাবি করে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ সভা সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচিত পৌর মেয়র ও ইউপি চেয়ারম্যান না থাকায় জনগণ তাদের নাগরিক সুবিধা ও কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মামলার নিষ্পত্তি যাতে না হয় সেজন্য একটি কুচক্রী মহল মামলার বাদীদের আর্থিক সহযোগিতা দিয়ে দীর্ঘসূত্রিতা বাড়াতে সহায়তা করে যাচ্ছেন। নির্বাচনের সম্ভাবনা না দেখে দুটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, মেম্বার এবং পৌরসভার কমিশনারগণ জনগণকে তাদের প্রত্যাশিত সেবা না দিয়ে মনগড়া মতো দায়িত্ব পালন করছেন। কারণ তারা জানেন মামলার নিষ্পত্তি না হলে নির্বাচনও হবে না। আর নির্বাচন না হলে তাদেরকে সরানোও যাবে না। ফলে অনেকটা স্বৈরতান্ত্রিকভাবেই তারা পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিচালনা করছেন। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে বর্তমান সরকারের মাধ্যমে শিবপুর পৌরসভা, মাছিমপুর ও চক্রধা ইউনিয়ন পরিষদের দ্রুত নির্বাচনের ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

২০০৮ সাল থেকে শিবপুর সংসদীয় আসনটি আওয়ামী লীগের দখলে থাকলেও রহস্যজনক কারণে ওই মামলা নিষ্পত্তি হচ্ছে না বলে সচেতন মহল মনে করেন।

শিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পৌর প্রশাসক মো. কাবিরুল ইসলাম খান জানান, আমি সদ্য এ উপজেলায় যোগদান করেছি। যেহেতু এ বিষয়ে মামলা রয়েছে, তাই এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাই না।

নরসিংদী-৩ (শিবপুর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জহিরুল হক ভূইয়া মোহন জানান, মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দ্রুতই পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করছি।




নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..







© All rights reserved © 2021 dailynarsingdi24.com ।
Theme Customized By BreakingNews
x
error: