1. dailynarsingdi24@gmail.com : Daily Narsingdi 24 : Rabbi Sarker
  2. ojjalsarker@gmail.com : ডেইলি নরসিংদী ২৪ : ডেইলি নরসিংদী ২৪
     
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন

আগুনে পুড়ে নিঃস্ব কাউছারের পাশে দাঁড়ালেন পাইকারচর ইউপি চেয়ারম্যান

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ জুন, ২০২০
  • ২১২ বার পঠিত

সুমন পাল, মাধবদী প্রতিনিধি : মাধবদী থানার পাইকারচর ইউনিয়নের সাগরদী গ্রামের হত -দরিদ্র কাউছার পাওয়ারলোমের কাজ করে তার সংসার চালায়। গত ৮ জুন সোমবার গভীর রাতে তার ঘরে আগুন লাগে। প্রতিবেশীদের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও ভাগ্য পুড়ে যায় তার। এখন থাকেন অন্যের ঘরে।

সোসাল মিডিয়ায় আগুনের ছবি ভাইরাল হলে কাউছার কে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন পাইকারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাশেম। চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি হিসাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তার ছেলে মোঃ সোহাগ।

সোহাগ বলেন, পাইকারচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হাশেম আমাকে ক্ষতিগ্রস্থ কাউছারের বর্তমান অবস্থা জানার জন্য পাঠিয়েছেন। তিনি একটি জরুরী কাজে আটকে পড়ায় আমাকে পাঠালেন। আমি ঘটনাস্থলে এসে সব কিছু দেখেছি এবং খোঁজ নিয়ে জানতে পারি কাউছার পরিশ্রম করে সংসার চালায়। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো তার ঘরটি আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। থাকা বা খাওয়ার মতো তার কাছে অবশিষ্ট কিছুই নাই। কাউছার আমাকে জানিয়েছেন, তার তিন লাখ টাকার মতো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আজ আমি চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে কাউছার কে নগদ অর্থ প্রদান করলাম এবং তাকে একটি পাকা টিনশেডের ঘর ও নির্মাণ করে দিবেন বলে চেয়ারম্যান কথা দিয়েছেন। তাছাড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকেও তাকে সব ধরনের সহযোগিতা করবেন। আমি কাউছার কে ধৈর্য ধরে পরিস্থিতি মোকাবিলা করার অনুরোধ জানাচ্ছি এবং সহৃদয়বান ব্যক্তিদের কে ও তার পাশে দাড়ানোর আহবান জানাচ্ছি। যে কোন অসহায় মানুষদের পাশে চেয়ারম্যান আবুল হাশেম সব সময়ই দাড়িয়েছেন এবং দাড়াবেন।

স্থানীয় মেম্বার জাহাঙ্গীর বলেন, কাউছার গরীব সহজ সরল মানুষ। তার পাশে চেয়ারম্যান দাড়িয়েছেন যা আনন্দের সংবাদ। আমি তার ব্যপারে খোঁজ-খবর রাখছি নিয়মিত। আশা করি কাউছারের এ অবস্থার পরিবর্তন হবে। সব ধরনের সহযোগিতা আমরা পরিষদ থেকেও করবো।

কাউছারের মা বলেন, আমার ছেলের এই দুঃসময়ে চেয়ারম্যান আবুল হাশেম যে সাহায্যের হাত বাড়ালেন তা কোন দিনই ভুলবো না। দোয়া করি চেয়ারম্যান যেন এভাবেই অসহায় মানুষদের পাশে দাড়াতে পারেন সব সময়।

ক্ষতিগ্রস্থ কাউছার বলেন, আমার এ দুঃসময়ে চেয়ারম্যান আবুল হাশেম ও তার ছেলে সোহাগ পাশে দাড়িয়েছেন। নগদ টাকা দিয়েছেন, টিনশেডের পাকা ঘর করে দিবেন বলেছেন, আমি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি চেয়ারম্যান এর প্রতি। চেয়ারম্যানের জন্য দোয়া করি তিনি যেন ভালো থাকেন সব সময়। তিনি আমাকে সাহস যোগিয়েছেন, আশা দিয়েছেন।




নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..







© All rights reserved © 2021 dailynarsingdi24.com ।
Theme Customized By BreakingNews
x
error: