1. dailynarsingdi24@gmail.com : Daily Narsingdi 24 : Rabbi Sarker
  2. ojjalsarker@gmail.com : ডেইলি নরসিংদী ২৪ : ডেইলি নরসিংদী ২৪
     
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন




নরসিংদীতে ৪০ দিন জামাতে নামাজ পড়ে সাইকেল পেল ২৭ কিশোর

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১১৩৬ বার পঠিত
নরসিংদীতে ৪০ দিন জামাতে নামাজ পড়ে সাইকেল পেল ২৭ কিশোর

ডেইলি নরসিংদী ২৪ : টানা ৪০ দিন মসজিদে এসে জামাতের সঙ্গে নামাজ আদায় করে পুরস্কার স্বরূপ বাইসাইল পেল ২৭ জন কিশোর। নরসিংদীর শেখেরচর বাবুরহাট বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদে শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) জুমার নামাজ শেষে কিশোরদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। এর আগে মসজিদটির খতিব মুফতি ইমদাদুল্লাহ কাসেমী কিশোরদের নামাজের প্রতি আকৃষ্ট করে মসজিদমুখী করার লক্ষ্যে মাস দেড়েক আগে নামাজ প্রতিযোগিতা ষোষণা করেন। পাশাপাশি বিজয়ী প্রত্যেককে একটি করে সাইকেল পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এরপর প্রায় শতাধিক কিশোর মসজিদে নিয়মিত জামায়াতের সঙ্গে নামাজ আদায় শুরু করে। পনের বছরের কম বয়সী কিশোররা এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পায়। সর্বশেষ যারা প্রতিদিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ একটানা ৪০ দিন জামায়াতের সঙ্গে আদায় করতে পেরেছে তারাই কেবল পুরস্কার লাভ করে।

এ ব্যাপারে বিজয়ীদের অনুভূতি জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘আমরা এ উপহার পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত। এ উপহার আমাদেরকে নামাজের প্রতি অনুপ্রাণিত করেছে। তবে আমরা কোনো পুরস্কারের লোভে নয় বরং একমাত্র আল্লাহকে রাজি-খুশি করার জন্য নামাজ জামায়াতের সঙ্গে আদায় করেছি।’ তারা যেন জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সঠিকভাবে নামাজ আদায় করে যেতে পারেন সে জন্য সকলের দোয়া চেয়েছে।

পুরস্কারের ঘোষক মুফতি ইমদাদুল্লাহ কাসেমী বলেন, ‘ঘোষণার পর থেকে প্রায় শতাধিক কিশোর মসজিদে নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামায়াতের সঙ্গে আদায় করা শুরু করে। তারা ঠিকমতো নামাজ আদায় করছে কিনা তা লিপিবদ্ধ রাখার জন্য প্রতি ওয়াক্ত নামাজে হাজিরা নেওয়া হতো। কেউ কোনো ওয়াক্তে উপস্থিত না থাকলে তার গণনা বন্ধ করে দেওয়া হতো। তবে সে চাইলে আবার নাম লিখিয়ে তার নামাজের দিন গণনা শুরু করতে পারত। এভাবেই নিয়মিত প্রতি ওয়াক্ত নামাজের হাজিরার ভিত্তিতে সর্বশেষ ২৭ জন বিজয়ী হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই কদিনে তাদের শুধু নামাজই পড়ানো হয়নি। বরং সঠিকভাবে নামাজ শিক্ষা ও নামাজ সম্পর্কে জরুরি মাসলাআ-মাসায়েল শেখানো হতো এবং সেই সঙ্গে তালিম-তরবিয়ত ও নামাজের প্রতি মানুষকে আহ্বানের পাশাপাশি দ্বীনি ইসলাম সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া হতো।’

স্থানীয়রা খতিব সাহেবের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘হুজুরের এ কার্যক্রম আমাদের বাচ্চাদের নামাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলেছে। আমরা কিছুদিন ধরে লক্ষ্য করছি, আমাদের ছেলেরা নামাজে নিয়মিত আসছে। তাদের পদচারণায় মসজিদ সব সময় মুখরিত হয়ে থাকত।’

মুফতি ইমদাদুল্লাহ কাসেমীর নেক হায়াত কামনা করে যুবসমাজকে নামাজে উদ্বুদ্ধ করে মসজিদমুখী করতে মসজিদের ইমামদের পাশাপাশি সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তারা।




নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..







© All rights reserved © 2021 dailynarsingdi24.com ।
Theme Customized By BreakingNews
x
error: